২৫ লাখের বেশি অ্যাকাউন্ট ব্যান করল টুইটার

নির্দিষ্ট নীতিমালার মধ্যেই চলতে হয় সব সোশ্যাল মিডিয়াকে। এই নিয়ম লঙ্ঘন করলেই হারাতে হয় অ্যাকাউন্ট। টুইটার তার প্ল্যাটফর্মে ভুল জিনিস প্রচার বা পোস্ট করার জন্য চলতি বছরের ২৬ মার্চ থেকে ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত ২৫ লাখের বেশি ভারতীয় অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ করেছে।

ওই সকল অ্যাকাউন্ট থেকে শিশু যৌন নির্যাতন সম্পর্কিত তথ্য এবং নগ্ন ছবি আপলোড হয়েছিল বলে অভিযোগ করা হয়েছিল।

ADVERTISEMENT

এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টুইটার মোট ২৫,৫৩,৮৮১টি ভারতীয় অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ করেছে। ১৫৮টি অভিযোগের ভিত্তিতে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তবে আপিলের পর ৩টি অ্যাকাউন্ট ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

টুইটারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারত থেকে প্রাপ্ত বেশিরভাগ অভিযোগই অপব্যবহার বা হয়রানি (৮৩টি), সংবেদনশীল প্রাপ্তবয়স্ক সামগ্রী (৪১টি), ঘৃণ্য আচরণ (১৯টি) এবং মানহানি (১২টি) আইন দ্বারা ব্যান করা হয়েছে।

টুইটারে থাকতে চাইলে তাদের নিয়ম মেনেই চলতে হবে। অ্যাকাউন্টগুলো ব্যান করার মাধ্যমে যা বুঝিয়ে দিলো ইলন মাস্কের এই প্রতিষ্ঠান।

ADVERTISEMENT

এদিকে শুক্রবার টুইটার ছাড়লেন শীর্ষস্থানীয় এক নারী কর্মকর্তা। তার নাম এলা আরউইন। তিনি সংস্থাটির হেড অব ট্রাস্ট অ্যান্ড সেফটি হিসেবে কর্মরত ছিলেন। জনপ্রিয় এই সোশ্যাল মিডিয়া সাইটটি ছেড়ে যাওয়ার কথা তিনি নিজেই ঘোষণা করেছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টুইটারের হেড অব ট্রাস্ট অ্যান্ড সেফটি এলা আরউইন বৃহস্পতিবার রয়টার্সকে বলেছেন, তিনি এই সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থা থেকে পদত্যাগ করেছেন।

রয়টার্স বলছে, আরউইন ২০২২ সালের জুন মাসে টুইটারে যোগ দিয়েছিলেন। একই বছরের নভেম্বরে সংস্থাটির ট্রাস্ট অ্যান্ড সেফটি দলের প্রধান হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন তিনি। মূলত পূর্ববর্তী প্রধান ইয়োয়েল রথ পদত্যাগ করার পর আরউইন এই দায়িত্বে এসেছিলেন।

জনপ্রিয় এই অনলাইন প্ল্যাটফর্মে ব্যবহারকারীদের আপলোড করা কনটেন্ট পর্যালোচনা এবং নিরীক্ষণের প্রক্রিয়া তত্ত্বাবধান করতেন এলা আরউইন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.