৫ রোহিঙ্গাকে অপহরণ, কবজি বিচ্ছিন্ন যুবক উদ্ধার

কক্সবাজারের টেকনাফের পাহাড়ি জনপদে অপহরণকারীদের দৌরাত্ম্য থামছে না। তিন বন্ধুকে অপহরণ করে খুনের ঘটনার রেশ না কাটতেই এবার এক রোহিঙ্গা যুবকের কবজি বিচ্ছিন্ন করল অপহরণকারীরা। এর আগে ওই যুবকসহ পাঁচ রোহিঙ্গাকে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করা হয়।

তিনি টেকনাফ হ্নীলা আলী খালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের শামসুল আলমের পুত্র। অপহরণকারীরা তার বামহাতের কবজি শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে।

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হালিম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, গত ২ জুন পাহাড়ি সন্ত্রাসীরা হ্নীলা আলীখালী ২৫নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের কাঁটাতারের বেড়া সংলগ্ন দোকান থেকে পাঁচ রোহিঙ্গাকে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে তাদের পরিবারের কাছ থেকে মুক্তিপণ দাবি করে।

আব্দুল হালিম বলেন, শনিবার সন্ধ্যার পর অপহৃত জাহাঙ্গীর আলমকে হাতের কবজি কেটে ছেড়ে দেয়। পরে স্থানীয়রা তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ওসি বলেন, অপহরণকারীরা একজনকে কবজি কেটে ছেড়ে দিলেও অপর চারজনকে ছেড়ে দেয়নি। তাদের উদ্ধারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.