প্রধানমন্ত্রীর মমতা দেখে অভিভূত বিমানের যাত্রীরা

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের একটি নিয়মিত বাণিজ্যিক ফ্লাইটে সাধারণ মানুষ বঙ্গবন্ধুকন্যার মহান হৃদয় ও মমতার এক অনন্য বৈশিষ্ট্য প্রত্যক্ষ করলেন। তাঁরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহযাত্রী হিসেবে ভ্রমণ করছিলেন।

সুইজারল্যান্ডের জেনেভা থেকে দেশে ফেরার পথে ফ্লাইটের যাত্রীরা বিস্মিত ও আনন্দিত হয়ে ওঠেন, যখন তাঁরা দেখলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই তাঁদের সঙ্গে দেখা করছেন। তিনি একের পর এক আসনে আসছেন এবং বিমানের আরোহী সবার সঙ্গে কুশল বিনিময় করছেন।

প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার মো. নজরুল ইসলাম বলেন, ফ্লাইটে যাত্রীরা তাঁদের আসনের পাশে প্রধানমন্ত্রীকে পেয়ে বিস্মিত ও অবাক হয়েছেন।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বড় মেয়ে শেখ হাসিনার সঙ্গে ছবি তুলতে চাইলে তিনি অনেক যাত্রীর অনুরোধ মেনে নেন। প্রধানমন্ত্রী বাচ্চাদের সঙ্গেও খুব স্নেহের সঙ্গে কথা বলেন, তাদের সঙ্গে কিছুক্ষণ মজার গল্প করেন এবং কয়েকটি শিশুকে কোলে তুলে নেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হঠাৎ কাছে পেয়ে বিস্মিত বিমানের যাত্রীরা। এক যাত্রীর সঙ্গে করমর্দন করছেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় কয়েক যাত্রী গত সাড়ে ১৪ বছরে দেশের অপ্রত্যাশিত উন্নয়নসহ বিভিন্ন বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে তাঁদের মতামত তুলে ধরেন।

প্রধানমন্ত্রী ১৪-১৫ জুন অনুষ্ঠিত ‘ওয়ার্ল্ড অব ওয়ার্ক সামিট: সোশ্যাল জাস্টিস ফর অল’-এ যোগদান শেষে সুইজারল্যান্ডের জেনেভা থেকে গত রাতে দেশে ফিরেছেন।

প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর সফরসঙ্গীদের বহনকারী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের একটি নিয়মিত ফ্লাইট গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত ১টা ৫৫ মিনিটে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.