ভারতে একটি গ্রামের বাসস্ট্যান্ডের নাম ‘বাংলাদেশ’

কয়েকদিন আগে ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু এবং কাশ্মীরে ‘বাংলাদেশ’ নামে একটি গ্রামের খোঁজ পাওয়া গিয়েছিল। এবার ভারতের মহারাষ্ট্রের একটি গ্রামের বাসস্ট্যান্ডের নামকরণ করা হয়েছে বাংলাদেশের নামে।

গত শুক্রবার (১৬ জুন) সেই রাজ্যের স্থানীয় পৌরসভার (মিরা-ভাঈন্দর পৌরনিগম) অন্তর্গত পশ্চিম ভাঈন্দরের উত্তান চক এলাকায় একটি বাসস্ট্যান্ডের নাম দেওয়া হয়েছে ‘বাংলাদেশ’।

এরপরই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে এসেছে বাসস্ট্যান্ডটি।

কেন প্রতিবেশী দেশের নামে বাসস্ট্যান্ডের নাম – সেই প্রশ্নের জবানে স্থানীয় এক বাসিন্দা জানিয়েছেন, জায়গাটির প্রকৃত নাম ইন্দ্র নগর। গত কয়েক বছর আগে ভারতীয়রাসহ অনেক বাংলাদেশি বাঙালিরা জীবিকার সন্ধানে এই অঞ্চলে আসেন।

সস্তায় বাসা ভাড়া পাওয়ার কারণে ইন্দ্র নগর এলাকায় বসবাস শুরু করেন। আর প্রচুর সংখ্যক বাঙালির উপস্থিতির কারণে অনেকেই অঞ্চলটিকে বাংলাদেশ নামে ডেকে থাকে।
স্থানীয়দের তথ্য অনুযায়ী, ইন্দ্র নগরের পশ্চিম প্রান্তে ভাঈন্দর হলো একটি সমুদ্র তীরবর্তী জায়গা। সে অঞ্চলে বহু মৎস্যজীবী ও মৎস্য ব্যবসায়ীর বসবাস করে থাকেন। মাছকে কেন্দ্র করেই জীবিকা নির্বাহ এবং ব্যবসায়িক কেন্দ্র গড়ে ওঠে। এসব কাজের কারণে লোকবলের প্রয়োজন। সেই কাজের সন্ধানে পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি বাংলাদেশ থেকেও বহু বাঙালি ভাঈন্দরে আসতে থাকেন। এরমধ্যে অনেকেই স্থানীয় হিসেবে পরিচিতি হয়ে উঠেছেন। বাঙালির আধিক্য বাড়ায় সেখানকার আদি স্থানীয়রা এলাকাটিকে ‘বাংলাদেশ বসতি’ বলে ডাকতে থাকে। ধীরে ধীরে এলাকাটি ওই নামেই পরিচিতি পায়। এখন ওই এলাকার বাসস্ট্যান্ডের নাম বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ নামের সেই বাসস্ট্যান্ড

এদিকে ‘বাংলাদেশ বসতি’নামে পরিচিত পাওয়ায় স্থানীয়দের ভারতীয় পরিচয় পত্রেও (আধার কার্ড, বিদ্যুতের বিল ইত্যাদি) বাংলাদেশ শব্দটি ব্যবহার হয়ে আসছে। উল্লেখযোগ্য বিষয় হল মিরা-ভাঈন্দর পৌরসভার কাছে এ ব্যাপারে কোনো তথ্যই নাকি ছিল না। তবে তাদের জানা না থাকলেও পৌরসভার তরফে কি করে মহারাষ্ট্রের মতো রাজ্যের একটি বাসস্ট্যান্ডের নামকরণ বাংলাদেশ করা হয়েছে, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

সম্প্রতি বাংলাদেশ নামের সেই ফলকটি সামনে আসে। এরপরই পৌরসভার এই সিদ্ধান্তে বিরোধিতা করেছেন স্থানীয় বাসিন্দাদের কেউ কেউ। তাদের অভিমত, এর ফলে এলাকার আসল পরিচিতি বিলুপ্ত হচ্ছে। পৌরসভার কাছে নতুন নাম সরিয়ে ফের পুরানো নাম বহাল রাখার আবেদন জানানো হয়েছে।

ওই এলাকার বাসিন্দা ধর্মেন্দ্র যাদব জানিয়েছেন, গত ২৫ বছর ধরে আমরা এখানে বসবাস করছি। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে দেখছি এই জায়গার নাম বাংলাদেশ বলে ডাকা হচ্ছে। খুব শিগগিরই এই নামের পরিবর্তন করা দরকার।

Leave A Reply

Your email address will not be published.