যুবনেতা জাহিদ ইফতেখার জেলা যুবলীগের নতুন চমক!

কক্সবাজার জেলা যুবলীগের কমিটি ঢেলে সাজানোর কাজ চলছে। শীঘ্রই শুরু হবে আগ্রহীদের জীবন বৃত্তান্ত জমা নেয়ার কাজ। আহবায়ক কমিটি হলে আহবায়ক হিসেবে লোকমুখে কয়েকজনের নাম বেশ শোনা যাচ্ছে। তাদের মধ্যে রয়েছেন ৩ ইফতেখার। তারা হলেন সোয়েব ইফতেখার, ইফতেখার উদ্দিন পুতু, জাহিদ ইফতেখার এবং কেন্দ্রীয় যুবলীগের নেতা ইশতিয়াক আহমেদ জয়। এছাড়াও মাসুকুর রহমান বাবুসহ আরো বেশ কয়েকজনের নামও শোনা যাচ্ছে লোকমুখে।

যুবলীগের একটি সূত্র বলছে, এবারে কমিটিতে আহবায়ক পদে দেখা যেতে পারে জিএম জাহেদ ইফতেকারকে। দলের জন্য ত্যাগের পাশাপাশি তার আছে দীর্ঘ রাজনৈতিক ক্যারিয়ার। তাছাড়া ছাত্রজীবনে জেলার নামকরা মেধাবী শিক্ষার্থীদের তালিকায় অন্যতম এই জাহিদ।

রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক পিতা ও বোর্ড স্ট্যান্ডধারী মাতার সহচার্যে গড়ে উঠা সুশিক্ষা, মানবিক, অসম্প্রদায়িক, উদার মানসিক ও প্রগতিশীল চিন্তা চেতনার মূর্ত মানব। শিক্ষাজীবনের ১ম ধাপে মেধাতালিকায় ১৪তম কুমিল্লা বোর্ড স্ট্যান্ড ও বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্সে শেষ ধাপে সাংবাদিকতা বিষয়ে যার প্রতিটি স্তরেই রেখেছেন প্রখর মেধার স্বাক্ষর। মেধাবী ছাত্র হিসেবে গতানুগতিক ধারার বাইরে গিয়ে দেশ মাতৃকার টানে নিজেকে উজাড় করে দিয়েছেন রাজনীতির আদর্শে। নীতি আদর্শে অটল ও মনে প্রাণে স্বাধীনতার স্বপক্ষে শক্তিকে বুকে নিয়ে ছাত্রলীগে একনিষ্ঠ কর্মী হয়ে নিজেকে উজাড় করে দিয়েছেন বারংবার। পদপদবীর মোহে আবদ্ধ না থেকে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে ও মানবিক সেবায় জড়িয়ে পড়েন। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ কমিটির গ্রন্থ ও গবেষণা সম্পাদকের দায়িত্বও পালন করেছিলেন। রাজনৈতিক প্রতিহিংসার স্বীকার হয়ে বহু মিথ্যা ও সাজানো মামলার আসামী হয়ে ফেরারি জীবন কাটাতে হয়েছে বহুবার। কিছুতেই নীতি আদর্শিক রাজনীতিতে হাল ছাড়েননি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ চুকিয়ে ২০০১ইং হতে ২০০৫ইং পর্যন্ত কক্সবাজার শহর-আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও যুগ্ম আহবায়ক হিসেবে দায়িত্ব পেয়ে যুব রাজনীতির একনিষ্ঠ কর্মী হিসেবে সুনাম অর্জন করেন। ২০০৫ইং হতে ২০১৮ ইং পর্যন্ত কক্সবাজার জেলা যুবলীগের ১নং সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৯ইং সালে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সপ্তম জাতীয় কংগ্রেসের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির সদস্য হিসেবে ও কৃতিত্বের সাথে দায়িত্ব পালন করেন। মেধাবী ও দক্ষ নেতৃত্বের অধিকারী জি. এম জাহিদ ইফতিকার শুধু রাজনীতির মধ্যে নিজেকে সীমাবদ্ধ রাখেননি।

তিনি বহু সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সংগঠনে জড়িত থেকে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি কক্সবাজার এর আজীবন সদস্য, কক্সবাজার জেলা ক্রীড়া সংস্থার কার্য নির্বাহী সদস্য, ব্ল্যাক ফাইটার কারাত ফেডারেশন কক্সবাজার এর সভাপতি, আবাহনী ক্রীড়াচক্র কক্সবাজার এর সভাপতি, বাংলাদেশ সমবায় ব্যাংক কক্সবাজার এর সাবেক পরিচালক, সিমুনিয়া খেলাঘর আসরের সহ-সভাপতি, জেলা চিংড়ি খামার মালিক সমিতির কার্য নির্বাহী সদস্য, কক্সবাজার জেলা জ্বালানি তেল পরিবেশকের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। ভারুয়াখালী আয়েশা সিদ্দিকা বালিকা মাদ্রাসার পরিচালনা পরিষদের সভাপতি, ভারুয়াখালী বানিয়াপাড়া জামে মসজিদের সভাপতিসহ অসংখ্য সামাজিক কাজের সাথে জড়িত রয়েছেন এই মেধাবী যুবলীগ নেতা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.