কক্সবাজারে পাহাড় কাটতে গিয়ে রোহিঙ্গা শ্রমিকের মৃত্যু

কক্সবাজার শহরের পাহাড়তলীতে পাড়ার কাটার সময় পাহাড় ধ্বসে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহত ব্যক্তি মোস্তফা আহমেদের ছেলে ইয়াছিন আরাফাত। জানা গেছে সে পেশায় একজন দিনমজুর।

বুধবার (২৮ জুন ) রাত ২টার দিকে কক্সবাজার শহরের ৭ নং ওয়ার্ডের পাহাড়তলীর ইসলামপুর এলাকায় পাহাড় ধ্বসে এই মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন ফায়ারা সার্ভিসের কর্মকতা মোহাম্মদ জাহেদ চৌধুরী।

তিনি জানান, “পাহাড় ধ্বসে মাটি চাপা পড়ার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে এসে এক ব্যাক্তিকে মাটি চাপা অবস্থায় দেখতে পেয়ে তাকে উদ্ধার করি। জানতে পারি তারা কয়েকজন মিলে পাহাড় কাটছিল।”

কক্সবাজার পৌরসভার ৭ নং ওর্য়াডের নব নির্বাচিত কাউন্সিলর ওসমান সরওয়ার টিপু জানান, “হঠাৎ পাহাড় ধ্বসে পড়ার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মাটি কেটে ইয়াছিন আরাফাত নামে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করি ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায়। ধারণা করা হচ্ছে পাহাড়ের মাটি কাটতে গিয়ে এই ঘটনা ঘটেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছু এক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, কয়েকজন শ্রমিক মিলে ঐ এলাকায় পাহাড় কাটছিলেন। হঠাৎ পাহাড় ধ্বস হলে বাকিরা পালিয়ে গেলে ইয়াছিন মাটি চাপা পড়ে যায়। খবর পেয়ে কক্সবাজার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের কর্মীরা দীর্ঘ এক ঘন্টার চেষ্টায় মাটির নিচ থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে।

এলাকাবাসীরা জানান, পাহাড় ধ্বসে নিহত শ্রমিক ইয়াছিন মিয়ানমারের নাগরিক। ক্যাম্প থেকে পালিয়ে এসে ইয়াছিন তার বাবা ও মাকে নিয়ে পাহাড়তলীর ইসলামপুরের একটি ভাড়া করা বাসায় দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.