প্লাস্টিক সার্জারি নিয়ে কটাক্ষের শিকার মেয়ে, মুখ খুললেন কাজল

বলিউড তারকাদের জন্য ‘প্লাস্টিক সার্জারি’ নতুন কিছু নয়। বহু অভিনেতা-অভিনেত্রী নিজেদের রূপ-সৌন্দর্য বাড়াতে অস্ত্রোপাচারের সাহায্য নিয়েছেন।

যদিও তারকারা অধিকাংশ সময়ই বিষয়টা অস্বীকার করে থাকেন। তাই বলে ভক্ত-অনুরাগীদের চোখকে তো আর ফাঁকি দিতে পারেননা। সম্প্রতি বলি অভিনেত্রী কাজল ‘প্লাস্টিক সার্জারি’ নিয়ে নিজের মনোভাব স্পষ্ট করেছেন।

ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্য নায়িকাদের অস্ত্রোপচারের সাহায্য নেওয়ার বিরোধিতা করেননি এই অভিনেত্রী। তবে বিষয়টিকে তিনি ‘ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত’ হিসেবেই দেখতে চেয়েছেন।

কাজল বলেন, ‘এটা কারো ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। তবে বাকিরা জোর করছে বলেই যে আমাকে অস্ত্রোপচারের সহায্য নিতে হবে, সেটা যেন না হয়।’

এ প্রসঙ্গে নতুনদের উদ্দেশেও পরামর্শ দিয়েছেন অভিনেত্রী। তার ভাষ্য, ‘ঈশ্বর তোমাদের একটি নির্দিষ্ট গঠনে তৈরি করেছেন। এরপরেও কোনো পরিবর্তন চাইলে রূপটান তো আছেই।’

ক্যারিয়ারের শুরুতে কাজলকেও তার চেহারার জন্য কটাক্ষের শিকার হতে হয়েছে। সে প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেন, ‘যারা কটু কথা বলতেন, আমি তাদের থেকে অনেক বেশি বুদ্ধিমতী। আমি জানতাম আমাকে সুন্দর দেখতে।’

এর আগে কাজলের কন্যা নিসা দেবগনকে সৌন্দর্য বৃদ্ধির অস্ত্রোপচার নিয়ে কটাক্ষের শিকার হতে হয়। নেটাগরিকদের একাংশ দাবি, নিসা অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তার চেহারার পরিবর্তন করেছেন।

যদিও কাজলের দাবি, তার মেয়ের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে কোনো অস্ত্রোপাচারের প্রয়োজন হয়নি। অভিনেত্রী জানান, ডায়েট এবং পুষ্টিকর খাবারের মাধ্যমেই মেয়ের চেহারায় পরিবর্তন এসেছে।

সম্প্রতি ‘লাস্ট স্টোরিজ় ২’-এ কাজলকে দেখা গেছে। চলতি সপ্তাহেই মুক্তি পাবে অভিনেত্রীর ক্যারিয়ারের প্রথম ওয়েব সিরিজ় ‘দ্য ট্রায়াল’। এই সিরিজ়ে কাজলের স্বামীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন টলিপাড়ার যিশু সেনগুপ্ত।

Leave A Reply

Your email address will not be published.