একলাফে ১৪১ টাকা বাড়ল এলপিজির দাম

টানা কয়েক দফায় কমার পর এবার বাড়ল তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাসের (এলপিজি) দাম। আগস্ট মাসে ভোক্তা পর্যায়ে ১২ কেজি সিলিন্ডারের দাম ১৪১ টাকা বাড়িয়ে ১ হাজার ১৪০ টাকা নির্ধারণ করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)। যা এতদিন ৯৯৯ টাকায় বিক্রি হয়ে আসছিল।

বুধবার (২ আগস্ট) বিকেলে বিইআরসি কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে নতুন এই দাম ঘোষণা করা হয়।

আগস্টে ভোক্তা পর্যায়ে ১২ কেজি সিলিন্ডারের দাম ১৪১ টাকা বাড়ানোর পাশাপাশি ১৫ কেজি সিলিন্ডারের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ১ হাজার ৪২৪ টাকা। সেই সঙ্গে ১৬ কেজি সিলিন্ডারের দাম ১ হাজার ৫১৯ টাকা, ১৮ কেজি ১ হাজার ৭০৯ টাকা, ২০ কেজি ১ হাজার ৮৯৯ টাকা, ২২ কেজি ২ হাজার ৯০ টাকা, ২৫ কেজি ২ হাজার ৩৭৪ টাকা, ৩০ কেজি ২ হাজার ৮৪৯ টাকা, ৩৩ কেজি ৩ হাজার ১৩৪ টাকা, ৩৫ কেজি ৩ হাজার ৩২৪ টাকা এবং ৪৫ কেজি সিলিন্ডারের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৪ হাজার ২৭৩ টাকা।LPGবিইআরসির ঘোষণায় বলা হয়েছে, আগস্ট ২০২৩ মাসের জন্য সৌদি আরামকো কর্তৃক প্রোপেন এবং বিউটেন এর ঘোষিত Saudi CP প্রতি মেট্রিক টন ৪৭০ মার্কিন ডলার এবং ৪৬০ মার্কিন ডলার এবং প্রোপেন ও বিউটেনের অনুপাত ৩৫:৬৫ অনুযায়ী প্রোপেন ও বিউটেন to Saudi CP প্রতি মেট্রিক টন ৪৬৩ দশমিক ৫০ মার্কিন ডলার বিবেচনায় আগস্ট ২০২৩ মাসের জন্য বেসরকারি এলপি অটোগ্যাসের ভোক্তাপর্যায়ের এ মূল্য সমন্বয় করা হলো। বেসরকারি এলপিজির রিটেইলার পয়েন্টে ভোক্তাপর্যায়ে মূসকসহ মূল্য প্রতি কেজি ৯৪ দশমিক ৯৬ টাকায় এবং বিভিন্ন পরিমাণের বোতলজাতকৃত বেসরকারি এলপিজির ভোক্তাপর্যায়ে মূসকসহ এ মূল্য সমন্বয় করা হলো।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, সমন্বয়কৃত এই মূল্য আজ বুধবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে প্রযোজ্য ও কার্যকর হবে এবং পরবর্তী আদেশ না দেওয়া পর্যন্ত তা বলবৎ থাকবে। এছাড়াও সরকারি এলপিজির ইআরএল/আরপিজিসিএল পর্যায়ের মূল্য অপরিবর্তিত থাকায় এবং সরকারি এলপিজির মূল্য সমন্বয়ের সঙ্গে Saudi CP এর সংশ্লিষ্টতা না থাকায় সরকারি এলপিজির মূল্য অপরিবর্তিত থাকবে বলেও জানানো হয়।LPGএর আগে গত জুলাইয়ে ১২ কেজি সিলিন্ডারের দাম ৭৫ টাকা কমিয়ে ৯৯৯ টাকা নির্ধারণ করেছিল বিইআরসি। তার আগে জুন মাসে ১২ কেজি সিলিন্ডারের দাম ১৫৯ টাকা কমিয়ে ১ হাজার ৭৪ টাকা করা হয়েছিল। তারও আগে মে মাসে প্রতি ১২ কেজি সিলিন্ডারের দাম ৫৭ টাকা বাড়িয়ে ১ হাজার ২৩৫ টাকা এবং গত এপ্রিলে ১২ কেজি সিলিন্ডারের দাম ২৪৪ টাকা কমিয়ে ১ হাজার ১৭৮ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছিল।

২০২১ সালের ১২ এপ্রিলের আগ পর্যন্ত এলপিজির দর ছিল কোম্পানিগুলোর ইচ্ছাধীন। তবে ১২ এপ্রিল প্রথমবারের মতো দর ঘোষণা করে বিইআরসি। ওই সময় বলা হয়, আমদানিনির্ভর এই জ্বালানির দাম নির্ধারণে সৌদি রাষ্ট্রীয় কোম্পানি আরামকো ঘোষিত দরকে ভিত্তি হিসেবে ধরা হবে। ফলে সৌদির দর ওঠানামা করলে ভিত্তিমূল্যও ওঠানামা করবে। তবে এ ক্ষেত্রে অন্যান্য কমিশন অপরিবর্তিত থাকবে। সেই ঘোষণার পর থেকে প্রতি মাসে এলপিজির দর ঘোষণা করে আসছে বিইআরসি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.