স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে বাবার বাড়িতে যাওয়ার পথে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ, গ্রেগতার ১

কক্সবাজারের টেকনাফে স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে বাবার বাড়িতে যাওয়ার পথে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক গৃহবধূ। এই ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে আজিজুল হক নাকে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃত আজিজুল হক সাবরাং ইউনিয়নের
৩নং ওয়ার্ড কচুবনিয়া এলাকার মাছ ব্যবসায়ী খুইল্যা মিয়ার পুত্র।

জানা যায় গত ৩আগস্ট ভুক্তভোগী ওই নারী তাঁর স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে মধ্য রাতে বাবার বাড়িতে যাওয়ার পথে পুরান পাড়া এলাকার ব্রিজের সামনে পৌঁছালে প্রধান আসামি আজিজুল হক,মোঃ ইসমাইল, সুবির নাতি বাবুল ওই নারীর পথরোধ করে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন। তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করার কারণে তার পেটের বাচ্চা নষ্ট হয়ে যায়।

ওই ভুক্তভোগী নারী ঘটনাস্থলে তাঁর শাশুড় বাড়ির লোকজনদের কে প্রত‍্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে মোবাইল নিয়ে জানায় তাকে ৫/৬ জন ছেলে সংঘবদ্ধ হয়ে ধর্ষণ করেন।

গ্রেপ্তারকৃত আজিজুল হক (২৫), মোঃ ইসমাইল (২৭) তাঁর সহযোগী সুবির নাতি বাবুল (২৩),তাঁকে নির্জন স্থানে নিয়ে গিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন।

জানা যায়,ভুক্তভোগী নারী পরিবারের পক্ষ থেকে টেকনাফ মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।এলাকাবাসী দাবি,এই প্রধান আসামি আজিজুল হক, মোঃ ইসমাইল, সুবির নাতি বাবুলের নেতৃত্বে মাদক কারবার, সড়কে ডাকাতি, স্কুলের মেয়েদের ইভটিজিং, ধর্ষণসহ বিভিন্ন অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। তাদের আটক করা হলে তাদের অপকর্মের চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে আসবে বলে জানান এলাকাবাসী।

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.মোহাম্মদ জোবাইর বলেন,এই মামলায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে,অন্যদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.