এলএনজি সরবরাহে সামিটসহ ২ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদি চুক্তি

দীর্ঘ মেয়াদে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) পেতে দুই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ১৫ বছরের চুক্তিতে যাওয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এগুলো হলো- কক্সবাজারের মহেশখালীতে স্থাপিত এক্সিলারেট এনার্জি বাংলাদেশে লিমিটেড এবং সামিট অয়েল অ্যান্ড শিপিং কোম্পানি লিমিটেড। এই দুই প্রতিষ্ঠান ২০২৬ সাল থেকে এলএনজি সরবরাহ করবে।

এই দুই প্রতিষ্ঠান থেকে দীর্ঘমেয়াদি চুক্তির আওতায় এলএনজি সরবরাহের প্রস্তাব প্রক্রিয়াকরণের জন্য নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।

বুধবার (৯ আগস্ট) অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভা হয়। সভা শেষে সাংবাদিকদের সভার সিদ্ধান্ত জানান মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. আমিন উল আহসান।

তিনি বলেন, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগের অধীন পেট্রোবাংলা কর্তৃক কক্সবাজারের মহেশখালীতে স্থাপিত এক্সিলারেট এনার্জি বাংলাদেশে লিমিটেডের কাছ থেকে ১৫ বছর মেয়াদে এক থেকে দেড় এমটিপিএ এলএনজি ২০২৬ সাল থেকে দীর্ঘমেয়াদি চুক্তির আওতায় সরবরাহের প্রস্তাব প্রক্রিয়াকরণের নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

অতিরিক্ত সচিব জানান, আরেক প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগের অধীন পেট্রোবাংলা কর্তৃক কক্সবাজারের মহেশখালীতে স্থাপিত সামিট অয়েল অ্যান্ড শিপিং কোম্পানি লিমিটেডের কাছ থেকে ১৫ বছর মেয়াদে দেড় এমটিপিএ এলএনজি ২০২৬ সাল থেকে দীর্ঘমেয়াদি চুক্তির আওতায় এলএনজি সরবরাহের প্রস্তাব প্রক্রিয়াকরণের নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগের অধীন পেট্রোবাংলা কর্তৃক ‘বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দ্রুত সরবরাহ বৃদ্ধি (বিশেষ বিধান) (সংশোধন) আইন-২০২১’-এর আওতায় সুইজারল্যান্ডের টোটাল ইঞ্জিনিয়ারিং গ্যাস অ্যান্ড পাওয়ার লিমিটেড থেকে ৩৩ লাখ ৬০ হাজার এমএমবিটিইউ এলএনজি ৪৭৮ কোটি ৬৩ লাখ ৫৩ হাজার ৯৩৬ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.