সাঈদীর চিকিৎসককে হত্যার হুমকিদাতা ঝিনাইদহে গ্রেফতার

আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর চিকিৎসক এস এম মোস্তফা জামানকে হত্যার হুমকিদাতাকে আটক করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। র‍্যাবের মুখপাত্র বলেন, জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর চিকিৎসক এস এম মোস্তফা জামানকে হত্যার হুমকিদাতা তফসিরুল ইসলামকে (২৩) ঝিনাইদহের মহেশপুর থেকে আটক করেছে র‍্যাব।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত তাফসিরুল স্থানীয় একটি কলেজে অনার্স ২য় বর্ষে পড়ালেখা করছে। সে স্কুলজীবন থেকেই বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের একজন সক্রিয় সদস্য। আইটিতে দক্ষ হওয়ায় অনলাইনে ইমেইল মার্কেটিংয়ের কাজ করে তাফসিরুল মাসে ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা আয় করতো। তার পিতা মো. রফিকুল ইসলাম রফি এলাকার জামায়াতের একজন সক্রিয় কর্মী। তার বিরুদ্ধে ২০১৩-১৪ সালে এলাকায় নাশকতা সৃষ্টির অপরাধে একাধিক মামলা দায়ের করা হয়েছিল। ওই মামলায় তিনি (তাফসিরুলের পিতা) কারাভোগ করেন।

র‌্যাব আরো জানায়, তাফসিরুল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ‘বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির দ্বারিয়াপুর, মহেশপুর#তাফসিরুল ইসলাম’ ও ‘বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির দ্বারিয়াপুর, মহেশপুর@তাফসিরুল ইসলাম’ নামে দুইটি ফেসবুক গ্রুপের অ্যাডমিন হিসেবে পরিচালনা করে। মূলত সে দলীয় ও রাজনৈতিক মতাদর্শ, ব্যক্তিগত ক্ষোভ ও আক্রোশ থেকে জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে তার চিকিৎসা প্রদানকারী চিকিৎসক মোস্তাফা জামানের ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বর বিভিন্ন মাধ্যমে খুঁজে বের করে হোয়াটসঅ্যাপ (এ খুনি বাইরে আয় তোকে এবং তোর পরিবারের সকল সদস্যদের হত্যা করে আমি আমার জীবনের লক্ষ্যপূরণ করবো, 9 mm কিনে রেখেছি) এবং ফেসবুক মেসেঞ্জারে (কুত্তার বাচ্চা বাইরে আয়, তোর পরিবারের সকলকে হত্যা করে আমার আশা পূরণ করবো, আমার জীবনে এখন একমাত্র কাজ হলো তোকে হত্যা করা) ম্যাসেজ দিয়ে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে।

পরবর্তীতে ভুক্তভোগী চিকিৎসক মোস্তফা জামান সংশ্লিষ্ট বিষয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি করলে গ্রেফতারকৃত তাফসিরুল ওই মেসেজ শুধুমাত্র হোয়াটসঅ্যাপ থেকে মুছে ফেলে। কিন্তু তার মোবাইলে উল্লিখিত হত্যার হুমকি সম্বলিত মেসেজের স্ক্রিনশট পাওয়া যায়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.