বিষের বোতল হাতে নিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে তরুণী

বিষের বোতল হাতে নিয়ে স্ত্রীর মর্যাদার দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশনে বসেছে এক তরুণী। ওই তরুণী সাফ জানিয়ে দিয়েছে, ঘরে না তুললে বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করবে। অন্যদিকে, প্রেমিকের মায়ের অনড় অবস্থান, কোনভাবেই তাকে ঘরে তুলবেন না।

ঘটনাটি রবিবার সকালে কক্সবাজারের পেকুয়া টৈটংয়ে। ওই ইউনিয়নের
নাপিতখালী সিকদার পাড়া মাহামুদুল হকের ছেলে জাহেদুল ইসলামের বাড়িতে।

ওই তরুণী বলছে, জাহেদুল ইসলামের সঙ্গে তার দুই বছর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কয়েকমাস আগে ১২ লাখ টাকা দেনমোহরে ইসলামী শরীয়া মতে তাদের বিয়ে হয়। তবে বিভিন্ন অজুহাতে তাকে আর ঘরে তুলছে না জাহেদ। চাকরির কথা বলে তার বাবার কাছ থেকে ২ লাখ টাকা নিয়ে এখন আর যোগাযোগ করছে না।

স্থানীয়রা জানান, রবিবার সকালে ওই তরুণী কাবিন নামা ও বিষের বোতল হাতে নিয়ে মাহমুদুল হকের বাড়িতে আসে। স্ত্রীর মর্যাদা দিয়ে তাকে ঘরে তুলে না নিলে আত্মহত্যার কথা বলে যাচ্ছে।

প্রেমিক জাহেদের মা রেহেনা বেগম বলেন, বিয়ের কথা আমরা জানার পর ডিভোর্স লেটার পাঠিয়ে দিয়েছি। তাকে আমার ছেলে ঘরে তুলবেনা, আমরাও ডুকতে দেবনা।

স্থানীয় ইউপির সদস্য ফয়সাল জানান, ঘটনাটি সত্য তবে আমি যতটুকু শুনেছি ওই মেয়েকে কয়েকমাস আগে প্রেম করে মাহামুদুল করিমের ছেলে জাহেদ বিয়ে করে। বিভিন্ন অজুহাতে টাকা পয়সাও হাতিয়ে নেয়। কিছু দিন আগে নাকি ছেলেটি ওই মেয়েকে ডিভোর্স দিয়েছে।

পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ওমর হায়দার বলেন , ওই মেয়ের বিয়ে হয়েছিল। মেয়েটি নারী নির্যাতন কোর্টে ছেলেও তার পরিবারের বিরুদ্ধে মামলা করেছে সেটি এখনো চলমান তারপরও অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে নিয়ে মেয়েটিকে সেইফ হোমে আনার চেষ্টা করছি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.