মাত্র ১৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে সুখ!

মাত্র ১৪০ টাকায় মিলবে সুখ। এই সুখ বিক্রি হচ্ছে নাইজেরিয়ায়। হ্যাপিভাইব নামের একটি প্রতিষ্ঠান ব্যতিক্রমী এই সেবা দিচ্ছে। ক্লায়েন্টদের হয়ে তাদের চাহিদা অনুযায়ী ফোনকলের মাধ্যমে প্রিয় মানুষটির কাছে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে ভালোবাসা, উৎসাহ, সুখ কিংবা আনন্দ।

এমনই আরও অনেক সেবা দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। আর এজন্য গুণতে হবে স্থানীয় মুদ্রায় ১ হাজার নাইরা, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৪০ টাকা। খবর আল জাজিরার।

অনেকেই আছেন, যারা নিজেদের মনের কথা গুছিয়ে বলতে পারেন না। প্রিয়জনকে বোঝাতে পারেন না কতটা ভালোবাসেন, কিংবা কোনো বিশেষ দিনে জানাতে শুভেচ্ছা পারেন না, নিজের ভুল বুঝতে পারার পর ক্ষমা চাওয়ার সাহসও হয়ে ওঠে না অনেকের। এসব মানুষের জন্যই সুখের দেবদূত হয়ে আবির্ভূত হয়েছে হ্যাপিভাইব। ১ হাজার নাইরার বিনিময়ে প্রিয় মানুষটির কাছে ক্লায়েন্টের মনের কথা পৌঁছে দেওয়া হয়। ফলে অনেক সম্পর্কে আবারও ফিরে আসে সুখ।

এই হ্যাপিভাইবের প্রতিষ্ঠাতা হলেন ২৭ বছর বয়সী নাইজেরিয়ান চুকউমা ইজেহ। করোনাকালীন ঘরবন্দি নিঃসঙ্গ মানুষগুলোকে আনন্দ দেয়ার উদ্দেশ্যে ফ্রিতে কল দেয়ার আগ্রহ দেখিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেন তিনি। এতে ব্যাপক সাড়া পাওয়ায় বন্ধু স্ট্যানলি এমবেলুকে নিয়ে খুলে ফেলেন সুখ বিক্রির কোম্পানি। ২০২০ সাল থেকে এখন পর্যন্ত তিন হাজারের বেশি কল করেছেন তারা।

চুকউমা ইজেহ বলেন, করোনাকালীন দেশের অনেকেই ঘরবন্দি হয়ে পড়লো, অনেকেই হতাশায় ভুগছিল। তখন আমি সিদ্ধান্ত নিলাম অনলাইনে মানুষকে আনন্দ দেওয়ার। বিনামূল্যে কল দিয়ে অনেককে আনন্দ দিয়েছি।

মজা করেই মানুষকে আনন্দ দেয়ার এই কাজ শুরু করা চুকউমার কোম্পানিতে বর্তমানে কর্মী সংখ্যা ৫০। রয়েছে ১৫টি ভাষায় বিভিন্ন ক্যাটাগরির কলের সুবিধা। আগামী দিনে মানুষকে থেরাপি, ও নানা পরামর্শ দেয়ার মতো কাজও করবে হ্যাপিভাইব।

Leave A Reply

Your email address will not be published.