বৈরী আবহাওয়ায় জাহাজ চলাচল বন্ধ, সেন্টমার্টিনে আটকা পর্যটকেরা

বৈরী আবহাওয়ায় সাগর উত্তাল থাকায় কক্সবাজারের টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-রুটে আজ শনিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এতে সেন্টমার্টিন দ্বীপে অন্তত ২০০ পর্যটক আটকা পড়েছেন। এর আগে গত বুধবার সকালে ৫১৭ জন পর্যটক নিয়ে টেকনাফের দমদমিয়া ঘাট থেকে সেন্টমার্টিনের উদ্দেশে প্রায় ছয় মাস পর বার আউলিয়া নামের একটি জাহাজ ছেড়ে যায়।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আদনান চৌধুরী এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, বঙ্গোপসাগরে বৈরী আবহাওয়া বিরাজ করায় সেন্টমার্টিন রুটে নৌযান চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এতে সেখানে অন্তত ২০০ পর্যটক আটকে থাকতে পারেন।

ইউএনও আরও বলেন, বিশ্ব পর্যটন দিবস সামনে রেখে সেন্টমার্টিনে পর্যটক যাতায়াতের জন্য বার আউলিয়া নামের একটি জাহাজ এক সপ্তাহের জন্য অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল।

বার আউলিয়া জাহাজের পরিচালক হোসাইনুল ইসলাম বাহাদুর বলেন, গত বুধবার থেকে তিন দিনে প্রায় ২ হাজার পর্যটক সেন্টমার্টিন ভ্রমণে গেছেন। আবহাওয়া পরিস্থিতি অনুকূলে এলে পুনরায় জাহাজ চলাচল শুরু হবে। টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে চলতি বছরের ২০ মার্চ থেকে জাহাজ চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

এই রুটে ১৬ বছর ধরে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল করলেও নাফ নদীর বিভিন্ন জায়গায় বালুচর জেগে ওঠে। নাব্যতার সংকটের কারণে মাঝেমধ্যে জাহাজ আটকানোর ঘটনা ঘটে থাকে।

এছাড়া গতকাল শুক্রবার টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিনে যাওয়ার পথে একটি স্পিডবোট নাইক্ষ্যংদিয়া এলাকায় উল্টে যায়। এতে সেন্টমার্টিন ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় ১৭ জন পর্যটকসহ ২৩ জনকে কোস্ট গার্ডের সদস্যরা উদ্ধার করেছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.