সহকারী প্রক্টর একদিন ও আম্মান দুদিনের রিমান্ডে

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফাইরুজ অবন্তিকাকে আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলায় সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলামের একদিন ও অবন্তিকার সহপাঠী আম্মান সিদ্দিকীর দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।
সোমবার (১৮ মার্চ) বেলা সোয়া ১১টার দিকে দুই আসামিকে কুমিল্লার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আবু বকর সিদ্দিকের আদালতে হাজির করা হলে রিমান্ড মঞ্জুর করেন তিনি।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শিবেন বিশ্বাস জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলামকে আবু বকর সিদ্দিকের আদালতে হাজির করে দুই দিন এবং অবন্তিকার সহপাঠী আম্মান সিদ্দিকীর পাঁচ দিন রিমান্ড চাওয়া হয়। পরে বিচারক আম্মানকে দুই দিন ও দ্বীন ইসলামকে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন এবং আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দেন।
এর আগে রোববার (১৭ মার্চ) রাতে কুমিল্লা জেলা পুলিশের একটি প্রতিনিধি দল ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কাছ থেকে দুই আসামিকে কুমিল্লায় নিয়ে আসে।
আত্মহত্যার ঘটনায় শনিবার (১৬ মার্চ) রাতে কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায় আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে অবন্তিকার মা তাহমিনা শবনম বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলাম ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৩তম ব্যাচের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী আম্মান সিদ্দিকীকে আসামি করে মামলা করেন।
মামলায় উল্লেখ করা হয়, অবন্তিকার সহপাঠী আম্মান সিদ্দিকী অফলাইনে ও অনলাইনে অবন্তিকাকে যৌন হয়রানি করে আসছিলেন। এ বিষয়ে সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলামের কাছে অভিযোগ করলে তিনি অভিযোগের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে উল্টো অবন্তিকাকেই নানাভাবে অপমান করে আসছিলেন।
অবন্তিকার সহপাঠীদের আন্দোলন ও আলটিমেটামের ফলে অবন্তিকার আত্মহত্যার ঘটনায় তার সহপাঠী রায়হান সিদ্দিকী আম্মান ও সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলামকে শনিবার (১৬ মার্চ) রাতে আটক করে ডিএমপি পুলিশ।
শুক্রবার (১৫ মার্চ) রাত ১০টার দিকে ফেসবুক পোস্টে নিজের আত্মহত্যার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলাম ও সহপাঠী আম্মান সিদ্দিকীকে দায়ী করেন অবন্তিকা। ফেসবুকে পোস্টের পর কুমিল্লা নগরীর বাগিচাগাঁও পিসি পার্ক স্মরণিকা ভবনে দ্বিতীয়তলায় নিজ বাসায় গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। তাৎক্ষণিক স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে কুমিল্লা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে হাসপাতালের আবাসিক সার্জন ডা. আব্দুল করিম খন্দকার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
অবন্তিকা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি কুমিল্লা সরকারি কলেজের সাবেক শিক্ষক অধ্যাপক প্রয়াত জামাল উদ্দিনের মেয়ে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.